ধূমপান মুক্ত জীবন শুরু করার আগে নিজেকে জানা খুবই প্রয়োজন। আর এই কাজটাই ধূমপান ছাড়ার মূল প্রভাবক হিসাবে কাজ করবে। এর জন্য নীচের ছোট্ট কুইজটি তে অংশ নিতে পারেন। এতে আপনি কিছুটা হলেও ধারণা পাবেন।
চলুন , নীচের প্রশ্নগুলোর উত্তর খুঁজি। তারপর যার যার উত্তর একটা ছোট্ট কাগজে লিখে রাখি। এরপর থেকে যখনই আপনি ধূমপান করার ইচ্ছা পোষণ করবেন ,সাথে সাথেই কাগজটি খুলে দেখবেন।

*** আপনি কেন ধূমপান ছাড়তে চান??
১) কারণ আপনি ধূমপান জনিত নানাবিধ রোগ যেমন, উচ্চরক্তচাপ, স্ট্রোক, ফুসফুসের নানাবিধ জটিল রোগ, ক্যান্সার ইত্যাদি থেকে বাচতে চান।
২) আপনি আপনার পরিবারকে ভালোবাসেন। তাদের কথা ভেবে আপনি ধূমপান মুক্ত থাকার চেষ্টা করতে পারেন।
৩) অধিক আর্থিক সঞ্চয় ।
৪) অন্যান্য।

আপনার উত্তর যদি ১ নাম্বারের সাথে মিলে যায়, তবে একটা ছোট্ট কাগজে এই রোগ গুলোর নাম লিখে রাখুন। আর প্র্তিবার ধূমপানের আগে চোখ বন্ধ করে ভাবুন , এই সিগারেটের প্রতিটি সুখটানে আপনি একটু একটু করে আলিঙ্গন করছেন হ্যার্ট এট্যাক, স্ট্রোক, ক্যান্সারের মতো মতন মরণব্যাধীকে ।
ঠিক তেমনি ভাবেই ধূমপান থেকে বিরত থেকে আপনি একটু একটু করে এই রোগগুলোর ঝুঁকি থেকে একটু করে দূরে সরে যাচ্ছেন ।

আপনার উত্তর যদি ২ হয় তবে আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটির একটি ছবি রাখতে পারেন, প্রতি ধূমপানের আগে ভাবুন আপনার স্নেহময়ী মায়ের মুখটি, ভাবতে পারেন প্রিয়তমার মুখ, ভাবতেই পারেন আপনার ছোট্ট শিশু সন্তানটির মুখ, যারা হয়তো আপনার সিগারেটের ধূয়াতেই একটু করে এগিয়ে যাচ্ছে কঠিন কোন রোগের দিকে। তাদের ভালোবাসার কি নির্মম প্রতিদান আপনি দিচ্ছেন!!!!! ভাবুন…সময় শেষ হয়ে যাবার আগেই ভাবুন।

আপনার উত্তর যদি ৩ হয় , তবে ভাবুন দৈনিক কি পরমাণ টাকা আপনি ধূমপানের পিছনে ব্যয় করে থাকেন? আর যদি ধূমপান না করে থাকেন তবে ১ বছরে আপনার এই খাত থেকে সঞ্চয় কত হতে পারে?? তো কি করছেন আগামী বছর এই সঞ্চচিত অর্থ দিয়ে?? এখনই প্ল্যান করে ফেলুন।

ধূমপান ছাড়ার পদ্ধতিঃ
আপনি কি সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন ধূমপান ছাড়বেন? তাহলে  আজই একটি তারিখ ঠিক করে ফেলুন ।
নতুন বছরের প্রথম প্রহরেই ধূমপান ত্যাগ করে আপনি আগামী বছরটি স্মরণীয় করে রাখতে পারেন। ধূমপান ত্যাগের দুইটি পদ্ধতি সারা পৃথিবীতে সবচেয়ে জনপ্রিয় ১) COLD TURKEY METHOD ২) THE WEANING METHOD। এর যেকোন একটি আপনি বেছে নিতে পারেন।

১) COLD TURKEY METHOD (কোল্ড টার্কি মেথড)ঃকোন ঔষধপত্র বা অন্য কোন কিছুর সাহায্য ছাড়াই একবারেই ধূমপান ত্যাগের এই পদ্ধতিই সবচেয়ে জনপ্রিয়। আপনার মনোবলই আপনার একমাত্র হাতিয়ার। এই মেথডের সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো, আপনি চাওয়া মাত্রই ধূমপানের জগত থেকে বেড়িয়ে আসতে পারেন। তবে একটি পরিসংখ্যানে দেখা যায় কোল্ড টার্কি মেথডে যারা ধূমপান ত্যাগ করেছেন তারা অনেকেই পরবর্তী সময়ে আবারো ধূমপান শুরু করেছেন। যদিও এর কারণ হলো ধূমপান ত্যাগ করার পরবর্তী চ্যালেঞ্জকে জয় করতে না পারা।

২) THE WEANING METHODঃ ধূমপানের পরিমাণ বা মাত্রা কমিয়ে দিয়ে বা অন্যান্য কোন ঔষধপত্রের সাহায্য নিয়ে ধূমপান ত্যাগের এই পদ্ধতি তুলনামূলক কম প্রচলিত। এর সুবিধার চাইতে অসুবিধাই বেশী । যেমন অনেকেই ধূমপান কমাতে গিয়ে আস্তে আস্তে ধূমপান ত্যাগের কথা ভুলেই যান, আবার অনেকেই আবার ধূমপান ছেড়ে ধোয়াবিহীন তামাকে অভ্যস্ত হয়ে পড়েন।

***তাই আপনি যেই পদ্ধতিই অবলম্বন করুন না কেনো, আমাদের সাথে একটি তারিখ ঠিক করে ফেলুন, আর তা হতে পারে আজকেই, হতে পারে আগামীকাল। তবে খেয়াল রাখবেন কোন ভাবেই তা যেন দুই-তিন সপ্তাহ পরে না
ধোয়ামুক্ত জীবনে আপনাকে আবারো সাগতম।

0